শুক্রবার, ডিসেম্বর 3, 2021
শুক্রবার, ডিসেম্বর 3, 2021
HomeFact Checkচট্টগ্রামের সংগ্রামী আশালতা দেবীর ২০১৮ সালের মৃত্যুর খবরকে টুইটারে শেয়ার করলেন মেঘালয়ের...

চট্টগ্রামের সংগ্রামী আশালতা দেবীর ২০১৮ সালের মৃত্যুর খবরকে টুইটারে শেয়ার করলেন মেঘালয়ের গভর্নর তথাগত রায়

ফেসবুক ও টুইটার থেকে আমরা সম্প্রতি একটি পোস্ট দেখি যেখানে দাবি করা হয়েছে মাস্টার দা সূর্যসেনের নেতৃত্বে চট্টগ্রামে অস্ত্রাগার লুন্ঠনের অন্যতম সহযোদ্ধা আশালতাদেবীর মৃত্যু হয়েছে। ১৯৩০ সালের অস্ত্রাগার লুন্ঠনে  মাস্টারদা সূর্যসেন,  প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার, কল্পনা দত্ত এবং গণেশ ঘোষের সহযোদ্ধা ছিলেন আশালতা দেবী।গতকাল তিনি পরলোক গমন করেছেন বলে পোস্ট ভাইরাল হয়েছে ফেসবুক ও টুইটারে। 

ফেসবুকে ভাইরাল এই পোস্টে  লেখা হয়েছে – ‘নীরবে চলে গেলেন মাস্টারদার সঙ্গী, বিপ্লবী আশালতা দেবী। হায়রে বাঙালি, চিনলে না তোমার মতো স্বাধীনতা সংগ্রামীকে! তখনকার দিনেই মেয়ে হয়েও স্বাধীনতার জন্য ঝাপিয়ে ছিলেন।শেষ প্রনাম জানাই ‘

Social media post claimed that yesterday on of the fighter of Bangladesh Chittagong armoury raid, has died.
Facebook post screenshot

Social media post claimed that Ashalata debi the another fighter of Chottagong armory raid, has died yesterday.
Facebook post screenshot

মেঘালয়ের রাজ্যপাল তথাগত রায়ও এই একই পোস্ট শেয়ার করেছেন তার টুইটার হ্যান্ডেল থেকে এবং এই ভাবে কারোর অজান্তে অবিভক্ত বাংলার এক বিশিষ্ট সংগ্রামী মারা গেলে অথচ বাংলার সরকার পক্ষ থেকে কোনো শ্রদ্ধা জানান হলো না সেই নিয়ে তিনি দুষেছেন ৩৪ বছর ধরে বাংলায় শাসনকারী কমিউনিস্ট পার্টিকে। 

Social media post claimed that yesterday on of the fighter of Bangladesh Chittagong armoury raid, has died.

Fact check / Verification

পোস্টটির সাথে যে ছবিটি দেওয়া হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে একজন মৃতা বৃদ্ধা মহিলার শবদেহ খাটে শোয়ানো এবং ওনার ওপর ভারতের জাতীয় পতাকা মেলে দেওয়া হয়েছে।  ভাইরাল এই ছবিটির রিভার্স ইমেজ সার্চ করার পর আমরা কিছু লিংক পাই ২০১৯ ও ২০১৮ সালের। 

অর্থাৎ  ২০২০ সালে ওনার মৃত্যু হয়েছে এই ঘটনাটি ভুল। ইতিহাসে চট্টগ্রামের ঘটনার সাথে  আশালতা দেবীর নামের তেমন উল্লেখ না থাকার জন্য আমরা নিশ্চিত হতে পারছিলাম না এই ঘটনাটি ২০১৮ সালের বা তার আগের কিনা। যদিও আমরা ছবিটির আসল উৎস কি তা নিয়ে এখনো অনুসদ্ধান করছি।২০১৮ সাল  থেকে তার মৃত্যুর খবর গুগলে রয়েছে।  বোধসমকাল নামের দুইটি পত্রিকার রিপোর্ট আমরা পাই যেখানে লেখা হয়েছে বিখ্যাত চট্টগ্রাম অস্ত্রাগার লুন্ঠনের সহ সংগ্রামী আশালতা দেবীর মৃত্যু হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের শ্রীরামপুরের বাড়িতে। বয়সজনিত কারণে তিনি বেশ কিছুদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। ২০১৮ সালের ১৩ই মে মাসে এই খবরটি প্রকাশিত হয়।  

প্রকাশিত সমকাল সংকলনে বলা হয়েছে তিনি বাংলাদেশের রংপুরে জন্মগ্রহন করেছিলেন এবং ঐতিহাসিক চট্টগ্রাম অস্ত্রাগার লুণ্ঠনে মাস্টারদা সূর্যসেন ও প্রীতিলতার সহযোদ্ধা ছিলেন।  আসল নাম বলা হয়েছে আশালতা সরকার। পশ্চিমবঙ্গে  থাকা কালীন তিনি সিঙ্গুর আন্দোলনকে সমর্থন জানিয়েছিলেন।  অবশেষে ২০১৮ সালের মে মাসে বার্ধক্য জনিত অসুস্থতায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।  

The printed version of Samakal newspaper

Conclusion

আমাদের অনুসন্ধানের দ্বারা আমরা যে খবরগুলো পেয়েছি, তা অনুযায়ী বাংলদেশের ১৯৩০ সালে চট্টগ্রাম অস্ত্রাগার লুন্ঠনের ঘটনার অন্যতম বীরাঙ্গনা সংগ্রামী আশালতা দেবী ২০১৮ সালেই পরলোক গমন করেছেন।  কিন্তু ওনার মৃত্যুর ঘটনাকে পুনরায় এখন আবার সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করা হচ্ছে।  বিজেপির তথাগত রায় যিনি বর্তমানে মেঘালয়ের রাজ্যপাল তিনিও এই একই পোস্ট শেয়ার করেছেন তার টুইটার থেকে, এই ঘটনার কোনো সত্যতা যাচাই না করেই।  

Result : Misleading 

Our sources

বোধ সংবাদপত্রhttps://www.bodhmag.com/single-post/2018/05/13/%E0%A6%9A%E0%A6%B2%E0%A7%87-%E0%A6%97%E0%A7%87%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%A8-%E0%A6%9A%E0%A6%9F%E0%A7%8D%E0%A6%9F%E0%A6%97%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%B6%E0%A7%87%E0%A6%B7-%E0%A6%AF%E0%A7%8B%E0%A6%A6%E0%A7%8D%E0%A6%A7%E0%A6%BE

সমকাল সংবাদপত্রhttps://samakal.com/todays-print-edition/tp-khobor/article/18052199/%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B2%E0%A6%AC%E0%A7%80-%E0%A6%86%E0%A6%B6%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%A4%E0%A6%BE-%E0%A6%B8%E0%A6%B0%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%AA%E0%A6%B0%E0%A6%B2%E0%A7%8B%E0%A6%95%E0%A7%87

সন্দেহজনক কোনো খবর ও তথ্য সম্পর্কে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে অথবা সত্যতা জানতে আমাদের লিখে পাঠান checkthis@newschecker.in অথবা whatsapp করুন- 9999499044 এই নম্বরে। এছাড়াও আমাদের সাথে Contact Us -র মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন ও ফর্ম ভরতে পারেন ।

Paromita Das
With a penchant for reading, writing and asking questions, Paromita joined the fight to combat and spread awareness about fake news. Fact-checking is about research and asking questions, and that is what she loves to do.
Paromita Das
With a penchant for reading, writing and asking questions, Paromita joined the fight to combat and spread awareness about fake news. Fact-checking is about research and asking questions, and that is what she loves to do.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular