বুধবার, সেপ্টেম্বর 22, 2021
বুধবার, সেপ্টেম্বর 22, 2021
HomeFact Checksনেদারল্যান্ডের স্কুলে গীতা পড়া বাধ্যতামূলক নয়, পুরোনো মিথ্যে দাবি ফের ভাইরাল সোশ্যাল...

নেদারল্যান্ডের স্কুলে গীতা পড়া বাধ্যতামূলক নয়, পুরোনো মিথ্যে দাবি ফের ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়াতে

ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে একটি পোস্ট, যেখানে দাবি করা হয়েছে নেদারল্যান্ডের সব বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণী থেকে ভারতীয় ধর্ম গ্রন্থ গীতা পড়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে সরকার থেকে। কারণ গীতা পড়লে মানসিক বিকাশ ঘটবে।  

এই দাবি ২০১৬ সাল থেকেই ভাইরাল হয়েছে।

https://www.facebook.com/hemant.sahasrabuddhe1/videos/2457343444334681

Fact check / Verification 

নেদারল্যান্ডের স্কুলে পঞ্চমশ্রেণী থেকে গীতা পড়ার কোনো নির্দেশ বা আইন সরকার পক্ষ থেকে আনা হয়নি। সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হলো ভুল দাবি। নেদারল্যান্ডে প্রাথমিক শিক্ষা প্রদানে কি কি বিষয় অন্তর্ভুক্ত করা আছে তা নিয়ে জানার জন্য সরকারি ওয়েবসাইটে খোঁজ করার পর  জানতে পারি বাচ্চাদের সেখানে বাধ্যতামূলক শিক্ষায়  ডাচ, ইংরাজি, গণিত, ইতিহাস, ভূগোল, এবং সংগীত, খেলাধুলা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।  

Screen shot taken from Government of Netherlands primary education website

এখানে ধর্ম বিষয়ক শিক্ষার বিষয়ে শিক্ষা প্রদানের ক্ষেত্রে বলা হয়েছে কোনো প্রাইমারি স্কুলে কোনো ধরণের ধর্ম মূলক শিক্ষা প্রদান করা হয়না। যদিও বেসরকারি স্কুল গুলোতে ধর্ম বিষয়ক বা ফ্রেঞ্চ, জার্মান ভাষার মতো অতিরিক্ত বিষয়ে শিক্ষাদান করতে পারে কিন্তু বাধ্যতামূলক ব্যাপারের কোনো উল্লেখ এখানে নেই।   

Screen shot taken from Government of Netherlands primary education website

Conclusion 

নেদারল্যান্ডের বিদ্যালয়ে পঞ্চমশ্রেণী থেকে গীতা পড়া বাধ্যতামূলক হয়নি। নেদারল্যান্ডের শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে ছড়ালো মিথ্যে দাবি।  

Result – Fake

Our source –

Government of Netherlands primary education – https://www.government.nl/topics/primary-education/subjects-and-attainment-targets-in-primary-education

সন্দেহজনক কোনো খবর ও তথ্য সম্পর্কে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে অথবা সত্যতা জানতে আমাদের লিখে পাঠান checkthis@newschecker.in অথবা whatsapp করুন- 9999499044 এই নম্বরে। এছাড়াও আমাদের সাথে Contact Us -র মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন ও ফর্ম ভরতে পারেন ।

Paromita Das
With a penchant for reading, writing and asking questions, Paromita joined the fight to combat and spread awareness about fake news. Fact-checking is about research and asking questions, and that is what she loves to do.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular