শুক্রবার, মার্চ 5, 2021
শুক্রবার, মার্চ 5, 2021
Home Fact Checks রাজ্য সরকারের মিলন উৎসব ২০২১ নিয়ে দিলীপ ঘোষের বিভ্রান্তিকর দাবি ভাইরাল হলো...

রাজ্য সরকারের মিলন উৎসব ২০২১ নিয়ে দিলীপ ঘোষের বিভ্রান্তিকর দাবি ভাইরাল হলো সোশ্যাল মিডিয়াতে

পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের ফেসবুকে থেকে বর্তমানে একটি পোস্ট ছড়িয়েছে। পোস্টটি রাজ্যসরকারের ‘মিলন উৎসব’ নিয়ে। ২০১৬ সাল থেকে শুরু হওয়া এই মিলন উৎসব প্রতি বছরের ন্যায় এই বছরের অনুষ্ঠিত হচ্ছে। দিলীপ ঘোষের ফেসবুক ও টুইটার থেকে যে পোস্টটি ছড়িয়েছে তাতে দাবী  করা হয়েছে – এটা শুধু নামে মিলন উৎসব, আসলে এর পেছনে লুকিয়ে আছে দুধেল গরুদের ভোট কেনা। অনুষ্ঠানে বেশির ভাগই মুসলিম, সরকারি অনুষ্ঠানের পিছলে আসলে চলছে তোষণের রাজনীতি। 

https://www.facebook.com/dilipghoshbjp/posts/3604659402952275

ফেসবুকে খবরের কাগজে এই উৎসবের বিজ্ঞাপনের ছবিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে অনুষ্ঠানের তারিখ ও করা উপস্থিত থাকেন সেই তালিকাকে দাগানো হয়েছে। ছবিটি শেয়ার করে বলা হয়েছে এটি রাজ্য সরকারের অনুষ্ঠান না ঈদ ঠিক বোঝা যাচ্ছে না।

Fact check / Verification 

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের মিলন উৎসবে আমন্ত্রিত বেশির ভাগ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা মুসমিল সম্প্রদায়ের হলেও এই অনুষ্ঠাটি শুধু মাত্র মুসলিম সম্প্রদায়ের উদ্দেশ্যে আয়োজিত হয় না, মুসলিম, শিখ, খ্রিষ্টান, জৈন,পার্সি, বৌদ্ধ প্রভৃতি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের  জন্য এই অনুষ্ঠান। 

কীওয়ার্ড দ্বারা খোঁজার পর WMDFC বা পশ্চিমবঙ্গ সংখ্যালঘু উন্নয়ন ও আর্থিক নিগমের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, WMDFC  দ্বারা বাংলার সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ছেলে মেয়েদের নানারকম পরিকল্পনা, স্কলারশিপের যেমন প্রাক-মেট্রিক, পোস্ট মেট্রিক, ছোট অঙ্কের আমানত, শিক্ষার জন লোন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়। যারা এই পরিকল্পনার দ্বারা আর্থিক সাহায্য পেয়েছে তারা হস্তশিল্প, কুটির শিল্পের মতো কাজের সাথে যুক্ত, কিন্তু গ্রামাঞ্চলে উপযুক্ত পরিবেশ না থাকার কারণে এনারা উৎপাদিত জিনিস বিক্রি করতে সক্ষম নয়।  তাই রাজ্য সরকারের তরফ থেকে মিলন উৎসবের সূচনা হয়েছে ২০১৬ সাল থেকে যেখানে তারা তাদের শিল্পকলার প্রদর্শন করতে পারবে এবং আমন্ত্রিত কর্পোরেট সংস্থার সাথে পরিচত হয়ে ব্যবসায়িক যোগ-সূত্র স্থাপিন করবে। শুধু মাত্র ব্যবসা নয়, উচ্চ শিক্ষা, চাকরি, ক্যারিয়ার কাউন্সেলিং,এবং সর্বোপরি ভিন্ন ধর্মের মধ্যে একটি সৌহার্দ্য পূর্ণ যোগাযোগ স্থাপন হবে। 

Screenshot taken from WBMDFC

এই ওয়েবসাইটের থেকে পাওয়া WMDFC বোর্ড অফ মেম্বারদের তালিকায় রয়েছে চেয়ারম্যান ডঃ পি বি সেলিম, আহমেদ হোসেন ইমরান, শানে কালভার্ট, মৃগাঙ্ক বিশ্বাস, সমরেন্দ্র নাথ কোলে ও আরো অনেকে। 

Screenshot taken from WBMDFC

Kolkata TVআজকাল সংবাদের প্রকাশিত খবরে পার্ক সার্কাসে এই বছরের মিলন উৎসবের সূচনা করেছেন রাজ্য পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখার্জী। প্রতি বছর এই উৎসবের একটি থিম থাকে যেমন এই বছর ছিল ‘ঐক্যতান’ . এই বছর বিশেষ অতিথি রূপে উপস্থিত ছিলেন কলকাতার পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম, জাভেদ আহমেদ খান ও গিয়াস উদ্দিন মোল্লা। ভিন্ন সম্প্রদায়ের উপস্থিতির সাথে সাথে চাকরি ও উচ্চ শিক্ষা কেন্দ্রিক ষ্টল, হস্তশিল্পের দ্রব্য সামগ্রী বিক্রির ষ্টল, খাবার, চিকিৎসাগত পড়াশোনা ও কাজের সম্পর্কেও অনুসন্ধান করা যাবে এই ষ্টল থেকে। 

Screenshot taken from AajKaal news

Conclusion 

সংখ্যালঘু সম্প্রদায় যেমন – মুসলিম, শিখ, পার্সি, জৈন, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের উদ্দেশ্যে আয়োজিত পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের ‘মিলন উৎসব’ নিয়ে বিভ্রান্তিকর দাবি করা হয়েছে রাজ্যের বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের ফেসবুক থেকে। বাংলার সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উন্নয়নের এই আয়োজনকে তিনি বিশেষ একটি সম্প্রদায়ের থেকে ভোট কেনার চাল বলে উল্লেখ করেছেন। 

Result – Misleading

Our sources

Kolkata TV – https://www.kolkatatv.org/news-details/25367

AajKaal – https://www.aajkaal.in/news/kolkata/kolkata-story-ubyv

WBMDFC – https://www.wbmdfc.org/Home/SignatureEventInner/NQ==

সন্দেহজনক কোনো খবর ও তথ্য সম্পর্কে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে অথবা সত্যতা জানতে আমাদের লিখে পাঠান checkthis@newschecker.in অথবা whatsapp করুন- 9999499044 এই নম্বরে। এছাড়াও আমাদের সাথে Contact Us -র মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন ও ফর্ম ভরতে পারেন ।

Avatar
Paromita Das
With a penchant for reading, writing and asking questions, Paromita joined the fight to combat and spread awareness about fake news. Fact-checking is about research and asking questions, and that is what she loves to do.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular