মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 7, 2021
মঙ্গলবার, ডিসেম্বর 7, 2021
HomeCoronavirusপশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন পরবর্তী হিংসাকে নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ...

পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন পরবর্তী হিংসাকে নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক ডঃ হর্ষ বর্ধন?

পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন পরবর্তী হিংসাকে নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন হর্ষবর্ধন ও অন্যান্য বিজেপি নেতারাও এই দাবিতে সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়েছে।বঙ্গে নির্বাচনের ফলাফলের পর থেকে রাজ্যের অনেক জায়গায় হিংসা ছড়িয়ে পড়েছে। বিজেপি এই সন্ত্রাসের জন্য টিএমসিকে দোষ দিচ্ছে। সংঘর্ষে এখনও 17 জন নিহত হওয়ার কথা জানা গেছে। এই হিংসার প্রতিবাদে বিজেপি নেতারা ৫ মে দেশের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন। দাবি করা হয়েছে ৫ই মের ঐ প্রতিবাদের সভায় ছিলেন ডাঃ হর্ষ বর্ধনও।

পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন পরবর্তী হিংসাকে  image 1

ভাইরাল ছবিতে ডঃ হর্ষ বর্ধন এবং বিজেপির অন্যান্য নেতা-মন্ত্রীরাও দেখা যাচ্ছে। ছবিতে প্রত্যেকের হাতে “বঙ্গ বাঁচাও, গণতন্ত্র বাঁচাও” ব্যানার হাতে নিয়ে ধর্নাতে বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে। আরও দেখা যাচ্ছে যে সমস্ত নেতারা মুখে আঙুল রেখে বসে আছেন। ছবিটির সাথে দাবি করা হয়েছে যে “মাঝখানে বসে থাকা ব্যক্তি হলেন এ দেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তাদের মুখোশ প্রয়োগ করার প্রয়োজন নেই। 5-7 জনের প্রাণহত্যার ধর্মঘটে বসে থাকার পরে, প্রতিদিন অক্সিজেন ও ওষুধের অভাবে আরও 3000 থেকে 3500 জন লোকও মারা যাচ্ছে। যেহেতু তারা কেবল তাদের কর্মীদের যত্ন করে তাই জনসাধারণকে নরকে যেতে হবে “

Crowdtangle এর মাধ্যমে দেখা যেতে পারে এই দাবি সমেত ছবিটি কতটা ভাইরাল হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন পরবর্তী হিংসাকে image 2

Fact-check / Verification

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ডঃহর্ষ বর্ধনের ভাইরাল ছবির সত্যতা জানতে আমরা তদন্ত শুরু করি । গুগল রিভার্স ইমেজ করার পর আমরা আমরা 15 মে, 2019-এ Dainik Jagran এবং HW হিন্দি দ্বারা প্রকাশিত দুটি প্রতিবেদন পাই। এই উভয় প্রতিবেদন অনুসারে, 14 মে 2019 সালে কলকাতায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের রোড শো চলাকালীন তাঁর রোড শো তে পাথর ছোঁড়া হয়েছিল। এই পাথর ছোঁড়ার পরে বিজেপি এবং তৃণমূল সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এই ঘটনার প্রতিবাদে বিজেপি নেতারা ধর্নায় দিল্লির যন্তর মন্ত্রে চুপচাপ বসেছিলেন। এই দুটি প্রতিবেদনেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ছবিটি ব্যবহার করা হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন পরবর্তী হিংসাকে image 3

আরও অনুসন্ধান করতে গিয়ে আমরা দূরদর্শন দ্বারা 15 মে 2019 তে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন পাই । এই প্রতিবেদনে ভাইরাল ছবি প্রকাশিত হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির রোড শো চলাকালীন সেখানে একটি অপ্রত্যাশিত ঘটনা ঘটে। এসময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহে রোড শো কে উদ্দেশ্য করে কিছু কিপ্ত জনতা পাথর নিক্ষেপ করে।

পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন পরবর্তী হিংসাকে image 4

অনুসন্ধানের সময়, আমরা 15 মে 2019 তে ANI র একটি টুইট পেয়েছি। একটি টুইটের মাধ্যমে জানানো হয়েছে যে বিজেপি নেতারা দিল্লির যন্তর মন্ত্রে ধর্নায় বসেছিলেন। টুইট বার্তায় একটি ভাইরাল ছবিও দেখা যায়, যেখানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ডঃহর্ষ বর্ধনকে দেখা যাচ্ছে এবং সাথে রয়েছেন অন্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং, বিজয় গোয়েল এবং নির্মলা সিথারমনকেও। পশ্চিমবঙ্গে সংঘর্ষের পরে, বিজেপি নেতারা নীরবে টিএমসির বিরুদ্ধে ধর্নায় বসেছিলেন।

Conclusion

পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন পরবর্তী হিংসাকে নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক ডঃ হর্ষ বর্ধন এই দাবিতে ভাইরাল ছবিটি দুই বছরের পুরনো। ছবিটি বর্তমানে বিভ্রান্তিকর দাবি সমেত ছড়াচ্ছে, আমরা অনুসন্ধান করে জেনেছি যে এই ছবিটি মে 2019 সালের ডঃ হর্ষবর্ধন এবং বিজেপির অন্যান্য নেতারা তখন দিল্লিতে টিএমসির বিরুদ্ধে নীরব প্রতিবাদ করেছিলেন। এটি লক্ষণীয় যে দেশে সে সময় কোনও করোনার সংক্রমণ ছিল না। অতএব, এই ছবিতে উপস্থিত নেতা,মন্ত্রীদের মুখোশ পরা কোন বাধ্যতামূলক ছিল না।

Result- Misleading

Our sources

ANI-https://twitter.com/ANI/status/1128546811084517376

DD News- http://ddnews.gov.in/hi/election-hub-national/BJP-protest-against-TMC?ref=inbound_article

Dainik Jagran-https://www.jagran.com/elections/lok-sabha-ncr-bjp-protest-at-jantar-mantar-over-violence-in-west-bengal-19223916.html

সন্দেহজনক কোনো খবর ও তথ্য সম্পর্কে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে অথবা সত্যতা জানতে আমাদের লিখে পাঠান checkthis@newschecker.in অথবা whatsapp করুন- 9999499044 এই নম্বরে। এছাড়াও আমাদের সাথে Contact Us -র মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন ও ফর্ম ভরতে পারেন।

Paromita Das
With a penchant for reading, writing and asking questions, Paromita joined the fight to combat and spread awareness about fake news. Fact-checking is about research and asking questions, and that is what she loves to do.
Paromita Das
With a penchant for reading, writing and asking questions, Paromita joined the fight to combat and spread awareness about fake news. Fact-checking is about research and asking questions, and that is what she loves to do.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular