বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 16, 2021
বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর 16, 2021
HomeFact Checksবিশ্বের সব থেকে দামি মুদ্রা 'Raam' হল্যান্ডে প্রচলিত?

বিশ্বের সব থেকে দামি মুদ্রা ‘Raam’ হল্যান্ডে প্রচলিত?

ফেসবুকে সম্প্রতি একটি শ্রীরামের ছবি সমেত মুদ্রার একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে যাকে ঘিরে দাবি করা হয়েছে- এটি হলো বিশ্বের সব থেকে দামি মুদ্রা ‘Raam’ যা এখনো হল্যান্ডে প্রচলিত আছে।

বিশ্বের সব থেকে দামি মুদ্রা 'Raam' image 1
Facebook Post link
বিশ্বের সব থেকে দামি মুদ্রা 'Raam' image 2
Facebook post link
বিশ্বের সব থেকে দামি মুদ্রা 'Raam' image 3

দাবি করা হয়েছে এই মুদ্রাকে নাকি নেদারল্যান্ডের সরকার মান্যতা দিয়েছিলো এবং আজ থেকে প্রায় বিশ বছর আগে এই মুদ্রা প্রচিলত করে মহর্ষি মহেশ যোগী জি।

বিশ্বের সব থেকে দামি মুদ্রা 'Raam' image 4
Facebook Post link

Fact-check / Verification

ফেসবুক থেকে এর আগেও আমরা অনেক ভাইরাল দাবির সত্যতা যাচাই করেছি যা নেদারল্যান্ড সম্পর্কিত ছিল। কখনো বলা হয়েছে নেদারল্যান্ডে গেরুয়া উদযাপন হচ্ছে, কখনও বলা হয়েছে সেখানে স্কুলে রামায়ণ পড়া বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। আমাদের অনুসন্ধানে সেই সব ভাইরাল দাবির সবই মিথ্যে প্রমাণিত হয়েছে।

নেদারল্যান্ডসকে হিন্দুরাষ্ট্র ঘোষণা করার পর গেরুয়া পোশাক পরে চলছে উদযাপন?

বর্তমানে আমাদের সামনে এসেছে অন্য একটি বিষয় যেখানে বলা হচ্ছে বিশ্বের সব থেকে দামি মুদ্রা ‘Raam’ প্রচিলত আছে নেদারল্যান্ডের হল্যান্ডে। এই দাবিটির সত্যতা যাচাই করার জন্য আমরা শুরু করি আমাদের অনুসন্ধান। গুগলে কীওয়ার্ড দ্বারা দিয়ে খোঁজার পর আমরা কিছু রিপোর্ট পাই।

বিশ্বের সব থেকে দামি মুদ্রা ‘Raam’ হল্যান্ডে প্রচলিত এই দাবিটি বিভ্রান্তিকর

আমাদের অনুসন্ধানে আমরা BBC, IndiaTodayLatestly র রিপোর্ট পাই। IndiaTodayর রিপোর্ট অনুসারে ২০০৩ সালে নেদারল্যান্ডের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক ‘Raam’ মুদ্রাটি চালু করার অনুমতি দেয়। শ্রীরামের ছবি ছাপা নোটের প্রবর্তক হলো মহর্ষি মহেশ যোগী সংস্থার একটি শাখা এবং এটি কোনো মুদ্রা নয় বরং বলা যেতে পারে এটি একটি বহনকারী বন্ধন (Bearer Bond ) ও স্থানীয় লোকেদের কাজে ব্যবহৃত মুদ্রা, যার ব্যবহার সীমিত। মহর্ষি মহেশ যোগী সংস্থার প্রচলিত The Global Country of world Peace এর তরফ থেকে এই মুদ্রার প্রচলন করা হয় যাকে মান্যতা দিয়েছিলো ডাচ সরকার, কিন্তু এই কোনো ভাবেই হল্যান্ডের বা সমগ্র নেদারল্যান্ডের সরকারি মুদ্রা নয়।

বিশ্বের সব থেকে দামি মুদ্রা 'Raam' image 5
IndiaToday News

BBCর প্রকাশিত রিপোর্ট অনুসারে নেদারল্যান্ডের সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক ‘Raam’ মুদ্রা বিবেবহারকে সম্মতি দিয়েছে ঠিকেই কিন্তু সেটি কোনো ভাবেই আইনি টেন্ডার রূপে ব্যবহৃত হবে না এবং এটি একটি সীমাবদ্ধ গোষ্ঠীর মধ্যেই সীমিত থাকবে। জানা গেছে নেদারল্যান্ডের ৩০টি গ্রামের ১০০টি দোকানি এই মুদ্রাকে গ্রহণ করেছে, কিন্তু সেটির প্রচলন সেই ভাবে হয়নি।

বিশ্বের সব থেকে দামি মুদ্রা 'Raam' image 6
BBC News

হল্যান্ডে বা সমগ্র নেদারল্যান্ডে প্রচলিত মুদ্রার নাম কি জানার জন্য খোঁজার পর আমরা Netherlands Tourism এর একটি লিংক পাই যেখানে বলা আছে ইউরোপের অন্যান্য দেশের মতো নেদারল্যান্ডেরও ইউরো প্রচলিত আছে। ১৯৯৯ সাল থেকে নেদারল্যান্ডে ইউরো প্রথম ব্যবহার হলেও ২০০২ সালে সরকারের তরফ থেকে এটিকে মান্যতা দেওয়া হয়।

বিশ্বের সব থেকে দামি মুদ্রা 'Raam' image 7
Netherlands Tourisam

Conclusion

ফেসবুকে ভাইরাল দাবি বিশ্বের সব থেকে দামি মুদ্রা ‘Raam’ হল্যান্ডে প্রচলিত। আমাদের অনুসন্ধানে প্রমাণিত হয়েছে এই দাবিটি বিভ্রান্তিকর। মহর্ষি মহেশ যোগী সংস্থার দ্বারা চালিত একটি শাখা শ্রীরামের ছবি দেওয়া নোটের প্রচলন করে, কিন্তু এটি সরকারী নয়,স্থানীয় মানুষদের ব্যবহারের জন্য প্রচলিত এই মুদ্রাকে ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়াতে ভুল দাবি করা হয়েছে।

Result- Misleading

Our sources

BBC News- http://news.bbc.co.uk/2/hi/business/2730121.stm

IndiaToday- https://www.indiatoday.in/magazine/indiascope/story/20031006-dutch-central-bank-allows-new-currency-issued-by-group-founded-by-maharishi-mahesh-yogi-791799-2003-10-06

LatestLY- https://www.latestly.com/social-viral/raam-is-not-a-currency-used-in-holland-know-all-about-the-bearer-bond-started-by-maharishi-cult-in-the-dutch-country-2709237.html

Netharlands Tourisam- https://www.netherlands-tourism.com/currency-used-netherlands/

সন্দেহজনক কোনো খবর ও তথ্য সম্পর্কে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে অথবা সত্যতা জানতে আমাদের লিখে পাঠান checkthis@newschecker.in অথবা whatsapp করুন- 9999499044 এই নম্বরে। এছাড়াও আমাদের সাথে Contact Us -র মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন ও ফর্ম ভরতে পারেন।

Paromita Das
With a penchant for reading, writing and asking questions, Paromita joined the fight to combat and spread awareness about fake news. Fact-checking is about research and asking questions, and that is what she loves to do.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular