মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর 27, 2022
মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর 27, 2022

HomeFact Checkঅসমের 'বাহুবলি' কিশোরের ভাইরাল ছবি প্রকৃতপক্ষে বাংলাদেশের যা ২০১৪ সালের বন্যার সময়ে...

অসমের ‘বাহুবলি’ কিশোরের ভাইরাল ছবি প্রকৃতপক্ষে বাংলাদেশের যা ২০১৪ সালের বন্যার সময়ে তোলা হয়েছিল

ভাইরাল ছবি

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় #prayforassamদিয়ে অসমের বন্যায় ত্রাণদানের পোস্ট, কোথাও বন্যা কবলিত অঞ্চল ও দুস্থ মানুষের ছবি পোস্ট করা হচ্ছে।  একে করোনার থাবা তার পর এই বিধ্বংসী বন্যা, ২০২০ সালে প্রকৃতি যেন তার সব থেকে ভয়ঙ্করতম রূপ নিয়ে আমাদের সামনে এসেছে।   অসমের  এই বন্যা নিয়ে সম্প্রতি একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে।  ছবিটিতে একটি কিশোরকে এক হরিণশাবকে জল থেকে তুলে আনতে দেখা যাচ্ছে।  অসমের বাহুবলি হ্যাশট্যাগ দিয়ে এই ছবিটি সোশ্যাল  মিডিয়াতে বেশ ভাইরাল হয়েছে।  

বন্যার জলের তোড়ে প্রায় ডুবন্ত এক হরিণ শিশুকে এক হাতে তুলে এনেছে এই কিশোর, ঠিক যেমন হিট ছবি বাহুবলিতে আমরা দেখেছিলাম। সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল এই ছবিটিতে কিশোরটিকে অসমের  বাহুবলি হ্যাশট্যাগ দিয়ে শেয়ার করা হয়েছে।

টুইটার ও ফেসবুক থেকে পাওয়া এই ছবির লিংক আমরা নিচে দিলাম।  

ফ্যাক্ট-চেক

ভাইরাল হওয়া এই ছবিটির গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চ করার পর Dailymail UK এর একটি লিংক পাই।  তাদের রিপোর্টে এই একই ছবির ব্যবহার করা হয়েছে কিন্তু সালটা ২০১৪।  রিপোর্ট অনুযায়ী বাংলাদেশের নোয়াখালীর বিলাল নামের এই কিশোরটি বিপদসীমার উপর দিয়ে বয়ে চলা জলে ডুবন্ত এই হরিণশাবকটিকে বাঁচায়।  নিজের প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে জলে নেমে উদ্ধার করে শাবকটিকে।  বন্যার জন্য পরিজন তাদের ভিটেমাটি ছাড়া হয় বিলালের পরিবার।  হরিণশাবকটি এক জলে মধ্যে হাবুডুবু খেতে দেখে ঝাঁপিয়ে পরে তাকে উদ্ধার কার্যে।  তাকে ডাঙায় তুলে আনার পর দলছুট এই হরিণ শিশুটি ফিরে পায় তার সঙ্গীদের।  

ফটোগ্রাফার হাসিবুল ওয়াহাব বন্যা বিধ্বস্ত অঞ্চলের ছবি তুলতে যান এবং এই ঘটনা দেখেন।  ক্যামেরা বন্দি করেন মানবতার এই নিদর্শনকে।  তিনি জানান যে নোয়াখালী প্রত্যেক বছর বন্যায় অনেক হরিণ হারায়। তাই এই অবলা প্রাণীদের বন্যা থেকে বাঁচাতে এখানকার স্থানীয়দের যথেষ্ট অবদান থাকে।

কীওয়ার্ড দিয়ে খোঁজার পর আমরা HUFFPOST, ExpressUK থেকেও আমরা এই ঘটনার কথা কথা জানতে পারি।

২০১৫ সালে চেন্নাইতে বন্যার পরিস্থিতির প্রতি সমবেদনা  জানিয়ে ভারতীয় ক্রিকেটের রোহিত শর্মা একটি টুইট করেন , কমেন্ট বক্সে Knight নামের একটি প্রোফাইল থেকে বিলালের হরিণশিশুকে বাঁচানোর ছবিটি দেওয়া হয়েছে এবং দাবি করা হয়েছে এই ঘটনাটি চেন্নাইয়ের ভন্ডলোর চিড়িয়াখানার ছবি। 

Scroll.in  ও The Indian Express একটি রিপোর্ট পাই যেখানে অসমের সিভিল সার্ভিসের এক অফিসারকে সাসপেন্ড করা হয় এই ছবিটি ব্যবহার করার জন্য।  মধুমিতা ভগবতী, যিনি অসমের নওগাঁয় জেলার কালিয়াবরের সিভিল সাব-ডিভিশনাল অফিসার ছিলেন, অসম বন্যার ১০ পাতার একটি রিপোর্ট তিনি দেন তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনোয়ালকে।  মুখ্যমন্ত্রী বন্যা পরিদর্শনে যাওয়ার পর এই রিপোর্টিটি পান এবং তৎকালীন  ভারতের গৃহমন্ত্রী রাজনাথ সিংকে রিপোর্ট জমা দেন।  পরে জানা যায় যে মধুমিতা ২০১৪ সালের বাংলাদেশের বন্যার ছবি যেখানে এক কিশোর ডুবন্ত হরিণশিশুকে জল থেকে বাঁচিয়েছে, অসমের নাম দিয়ে সেই ছবি তিনি তার রিপোর্টে দেন।  এর পর তাকে সাসপেন্ডও করে দেওয়া হয়।  

অর্থাৎ ২০১৫, ২০১৬ থেকে বাংলাদেশের সাহসী কিশোর বিলালের নিজের প্রাণের ঝুঁকি নিয়েও একটি হরিণশাবককে বন্যার জল থেকে বাঁচিয়ে আনার ছবি ব্যবহার করা হচ্ছে। আজকের অসমের বন্যা পরিস্থিতির সাথে এই ছবিটির কোনো সম্পর্ক নেই।

ফলাফল

 অপ্রাসঙ্গিক Misplaced context

আমাদের উৎস:

(সন্দেহজনক কোনো খবর ও তথ্য সম্পর্কে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে অথবা সত্যতা জানতে আমাদের লিখে পাঠান [email protected] অথবা whatsapp করুন- 9999499044 এই নম্বরে। )

Paromita Das
Paromita Das
With a penchant for reading, writing and asking questions, Paromita joined the fight to combat and spread awareness about fake news. Fact-checking is about research and asking questions, and that is what she loves to do.
Paromita Das
Paromita Das
With a penchant for reading, writing and asking questions, Paromita joined the fight to combat and spread awareness about fake news. Fact-checking is about research and asking questions, and that is what she loves to do.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular