বুধবার, ডিসেম্বর 7, 2022
বুধবার, ডিসেম্বর 7, 2022

HomeFact CheckPoliticsকলকাতার মোমিনপুরে গোষ্ঠী-সংঘর্ষের আবহে ফেসবুকে ছড়ালো অপ্রাসঙ্গিক ছবি 

কলকাতার মোমিনপুরে গোষ্ঠী-সংঘর্ষের আবহে ফেসবুকে ছড়ালো অপ্রাসঙ্গিক ছবি 

কোজাগরি লক্ষ্মী পুজোর দিন কলকাতার মোমিনপুরে স্থানীয় দুই গোষ্ঠীর মধ্যে আচমকা গোলযোগের জেরে রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে মোমিনপুর, ইকবালপুর এলাকা। এই মোমিনপুরের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফেসবুকে একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে যেখানে লেখা হয়েছে ‘উড়ছে ধোঁয়া লাগছে বেশ, ৫০০ টাকায় বাংলা শেষ’ . ছবিতে দেখা যাচ্ছে আগুনের কালো ধোঁয়ায় সামনে তিন ব্যক্তি দাঁড়িয়ে আছেন। 

কলকাতার মোমিনপুরে গোষ্ঠী-সংঘর্ষের আবহে ফেসবুকে ছড়ালো অপ্রাসঙ্গিক ছবি  image 1
কলকাতার মোমিনপুরে গোষ্ঠী-সংঘর্ষের আবহে ফেসবুকে ছড়ালো অপ্রাসঙ্গিক ছবি  image 2
Courtesy: Facebook/ratanr950

গোষ্ঠী-সংঘর্ষের জেরে লক্ষ্মী পুজোর দিন মোমিনপুর এলাকায় বেশকিছু দুই চাকা গাড়ি, বাড়ি, দোকান লুঠ করে ভাঙচুর চালানো হয়েছে। এর এই ঘটনার পর বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহকে টুইট করেন যাতে মোমিনপুরের বিশৃঙ্খল পরিস্থিতিতে শান্ত করতে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে মোতায়েন করা হয়। অন্যদিকে রাজ্যের বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার সোমবার মোমিনপুরের দিকে রওনা দিলে ওনার এতে আরো কিছু বিজেপি নেতাদের গ্রেপ্তার করে কলকাতা পুলিশ। জানা গিয়েছে উত্তপ্ত এলাকায় ৫জনের বেশি মানুষের জমায়েত করা যাবে না এবং ১২ই অক্টোবর পর্যন্ত সেখানে ১৪৪ ধারা বজায় থাকবে। 

Fact check/ Verification

কলকাতার মোমিনপুরে গোষ্ঠী-সংঘর্ষের আবহে ফেসবুকে উড়ছে ধোঁয়া লাগছে বেশ, ৫০০ টাকায় বাংলা শেষ’  দাবির সাথে যে ছবিটি ভাইরাল হয়েছে সেটি এই সংঘর্ষ সম্পর্কিত নয় কারণ যে তিন ব্যক্তিকে এই ছবিতে দেখা যাচ্ছে তাদের সকলের পরনে রয়েছে শীতের পোশাক। এক ব্যক্তির মাথায় রয়েছে টুপি,অন্য দুজনের গায়ে জ্যাকেট। 

ছবিটির সত্যতা জানার জন্য রিভার্স ইমেজ করার পর আমরা মারাঠি সংবাদপত্র Lokmat এর ২০১৯ সালের কিছু রিপোর্ট পাই যেখানে এই ছবি আমি পাই। ২২শে ডিসেম্বর ২০১৯ সালের এই রিপোর্ট মারাঠি ভাষায় হওয়ার কারণে আমরা বেশি কিছু তথ্য না পেলেও এইটুকু বুঝতে পারি এটি বিহারে CAA সম্পর্কিত। 

কলকাতার মোমিনপুরে গোষ্ঠী-সংঘর্ষের আবহে ফেসবুকে ছড়ালো অপ্রাসঙ্গিক ছবি  image 3

এখানেই আমরা Reddif.com এর লিঙ্কও পাই। এখানে এই ছবিটির সাথে লেখা হয়েছে বিহারে আরজেডি দলের সমর্থকরা রাস্তায় গাড়ির চাকা জ্বালিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে নাগরিকত্বই বিলের বিরুদ্ধে যা আমরা এই ছবিটির কমেন্ট বক্সেও দেখি।

এই সূত্র ধরে আমরা গুগলে অনুসন্ধান শুরু করি এবং এই পর্যায়ে আমরা Times Of India র রিপোর্টে এই ছবিটি পাই। ২০১৯ সালের ২১শে ডিসেম্বরের এই রিপোর্টে বলা হয়েছে বিহারের লালুপ্রসাদের রাষ্ট্রীয় জনতা দলের সমর্থকরা নাগরিকত্ব বিলের বিরুদ্ধে রাস্তায় আন্দোলন করে। রাস্তা আটকে মিছিল করে, ট্রেন অবরোধ করে ভাংচুর চালায়। RJD কর্মী-সমর্থকরা বাদেও বাচ্চাদেরও দেখা গিয়েছিলো এই মিছিযে, যাদের হাতে লাঠি ও দলের পতাকা ছিল। যদিও পুলিশের তাড়া খেয়ে তারা ছত্রভঙ্গ হয়ে পালিয়ে যায়।

কলকাতার মোমিনপুরে গোষ্ঠী-সংঘর্ষের আবহে ফেসবুকে ছড়ালো অপ্রাসঙ্গিক ছবি  image 4

কলকাতার মোমিনপুরে গোষ্ঠী-সংঘর্ষের আবহে ফেসবুকে ছড়ালো অপ্রাসঙ্গিক ছবি 

আমাদের অনুসন্ধানকে আরো এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সময় ভাইরাল ছবিটিকে Yandex এ খোঁজার পর FirstpostBusiness Standard এর টুইট পাই। টুইটে বলা হয়েছে বিহারের আরজেডি আয়োজিত বিহার বন্ধের জেরে ট্রেন ও যানবাহনের চলাচল ব্যাহত হয়ে পরে। এই টুইটে মোমিনপুরের সংঘর্ষের আবহে যে ছবিটি ভাইরাল হয়েছে সেটি রয়েছে এবং সাথে আরো কিছু ছবি রয়েছে বিহারের CAA বিরোধী বন্ধের। আন্দোলনকারীদের হাতে RJD দলীয় পতাকাও রয়েছে। 

অর্থাৎ দেখা যাচ্ছে কলকাতার মোমিনপুরে গোষ্ঠী-সংঘর্ষের আবহে ফেসবুকে বিহারের ২০১৯ সালের CAA বিরোধী আন্দোলের ছবি ভাইরাল হয়েছে যা পরিচালিত হয়েছিল RJD সমর্থদের দ্বারা। 

Conclusion 

আমাদের অনুসন্ধানে প্রমাণিত হয়েছে  কলকাতার মোমিনপুরে গোষ্ঠী-সংঘর্ষের আবহে ফেসবুকে ছড়ালো অপ্রাসঙ্গিক ছবি।  ছবিটি ২০১৯ সালের যা বর্তমানে বিভ্রান্তিকর দাবি সময় ছড়িয়েছে।  

Result: False

Our Sources

Business Standard‘s tweet
Times Of India’s report


সন্দেহজনক কোনো খবর ও তথ্য সম্পর্কে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে অথবা সত্যতা জানতে আমাদের লিখে পাঠান [email protected] অথবা whatsapp করুন- 9999499044 এই নম্বরে। এছাড়াও আমাদের সাথে Contact Us -র মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন ও ফর্ম ভরতে পারেন।

Paromita Das
Paromita Das
With a penchant for reading, writing and asking questions, Paromita joined the fight to combat and spread awareness about fake news. Fact-checking is about research and asking questions, and that is what she loves to do.
Paromita Das
Paromita Das
With a penchant for reading, writing and asking questions, Paromita joined the fight to combat and spread awareness about fake news. Fact-checking is about research and asking questions, and that is what she loves to do.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular