বৃহস্পতিবার, জুলাই 29, 2021
বৃহস্পতিবার, জুলাই 29, 2021
HomeFact Checksফের শীতলকুচির নামে সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হলো অপ্রাসঙ্গিক ছবি

ফের শীতলকুচির নামে সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হলো অপ্রাসঙ্গিক ছবি

শীতলকুচি নিয়ে বিতর্ক যেন থামতেই চাইছে না। ফেসবুকে শীতলকুচি নিয়ে ভাইরাল হয়েছে একটি ছবি যেখানে দেখা যাচ্ছে কিছু বিক্ষিপ্ত জনতা পুলিশের দিকে তেড়ে যাচ্ছে। বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন বেশি বাড়াবাড়ি হলে জায়গায় জায়গায় শীতলকুচি হবে-এই দাবিকে সমর্থন জানিয়ে এই ছবি পোস্ট করা হয়েছে।

ফেসবুকে এই পোস্টটি অনেকেই তাদের অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট করেছে।

শীতলকুচি image 1
https://www.facebook.com/photo?fbid=135023848581255&set=gm.1179053049193657
শীতলকুচি image 2
https://www.facebook.com/photo?fbid=268345314937218&set=a.107750497663368
শীতলকুচি image 3
https://www.facebook.com/photo?fbid=118787796973298&set=gm.907038083361055

Fact-check / Verification

কোচবিহারের চতুর্থদফা ভোট হওয়ার সময় থেকেই শীতলকুচির পরিস্থিতি অশান্ত হয়ে উঠেছে।শীতলকুচির কিছু বুথে ভোট দানকারী ও কেন্দ্রীয় বাহিনীর মধ্যে বচসার জেরে গুলি চলে এবং তাতে প্রাণ গেছে ৫জনের।

আরও পড়ুন- শীতলকুচির নির্বাচন কেন্দ্রে লাঠি হাতে উত্তেজিত জনতাকে তাড়া করলো কেন্দ্রীয় বাহিনী?

এই ঘটনা নিয়ে রাজ্যের রাজনীতি উত্তপ্ত হয়ে আছে। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী চতুর্থদফা ভোটের আগে CRPF ঘেরাও ও বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষের জায়গায় জায়গায় শীতলকুচি হবে এই ধরণের উস্কানিমূলক মন্তব্যের জেরে প্রত্যেকেই তৃণমূল ও বিজেপিকে তুলোধোনা করছে। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে যদিও একদিনের জন্য মমতা ব্যানার্জীর প্রচার বন্ধ ছিল এবং দিলীপ ঘোষ ও কড়া নোটিশ পেয়েছেন কমিশনের থেকে।

শীতলকুচির বিক্ষোভের নামে সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল ছবি যেখানে কিছু বিক্ষিপ্ত জনতা তেড়ে যাচ্ছে পুলিশের দিকে, এই ছবিটি ২০১৭ সালের হরিয়ানার

শীতলকুচির নামে ফেসবুকে ছড়ানো ছবিটিকে গুগল রিভার্স ইমেজ করার পর আমরা কিছু টুইট ও ফেসবুক পোস্ট পাই। কিছু টুইটের ব্যবহারকারী ২০১৮ সালে এই ছবিটি টুইট করেছিল। সেই টুইটগুলো পর্যবেক্ষন করার সময় আমরা লক্ষ্য করি নাওয়াজ-উল-হক নামের এক ব্যক্তি অন্য কোনো এক টুইটের উত্তরে এই ছবিটি পোস্ট করে লিখেছেন দয়া করে এটার দিকে দেখুন, এটা আপনার হরিয়ানার ছবি।

শীতলকুচি image 4

এই সূত্র পাওয়ার পর কীওয়ার্ড দিয়ে খোঁজার পর আমরা এই ছবিটি ২০১৮ সালের কিনা বা কবে কোথায় এটি তোলা হয়েছে তা জানতে ব্যর্থ হই। Yandex টুলের দ্বারা খোঁজার পর আমরা আরও কিছু টুইটার পোস্ট পাই এবং সেখানে #RamRahimSingh এই কথাটি লেখা ছিল। আমরা একে একে ঐ পোস্টগুলো খুলি এবং জানতে পারি এই ছবিটি আসলে ২০১৭ সালে হরিয়ানার রামরহিম সিংহের গ্রেপ্তারের সময়ের।

Asianet newsable সংবাদ মাধ্যমে এই ছবিটি রয়েছে এবং হরিয়ানা থেকে স্বঘোষিত ধর্মগুরু ডেরা সাচ্চা সৌদার প্রধান রামরহিমের গ্রেপ্তারের খবর। প্রকাশিত খবর অনুসারে ডেরার গুরু রামরহিমের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনার পর আটকে গ্রেপ্তার করতে যাওয়ার সময় ওনার ভক্তদের সাথে হরিয়ানা ও পাঞ্জাবের বর্ডারের মাঝে পঞ্চকুলায় এই সংঘর্ষ। ২০১৭ সালে ডেরায় রামরহিমের ভক্তদের কয়েকজন ওনার নামে ধর্ষণের অভিযোগ আনে। তাকে পুলিশি হেফাজতে নিতে যাওয়ার সময় প্রায় হাজার খানেক সমর্থক পঞ্চকুলাতে পুলিশের সাথে বিক্ষোভ শুরু হয়।

শীতলকুচি image 5


জানা গেছে ৫২টি অশান্ত পরিস্থিতির কেস দায়ের করা হয়েছিল এবং প্রায় ৯২৬জনকে আটক করেছিল পুলিশ। এই বিক্ষোভে ৩৮জনের মৃত্যু পর্যন্ত হয়েছে।এই ঘটনার জেরে হরিয়ানা ও পাঞ্জাবে ২৭ থেকে ২৯শে অগাস্ট পর্যন্ত ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করা হয়েছিল।

The Indian Express এ হরিয়ানায় পঞ্চকুলায় স্বঘোষিত ধর্মগুরু রামরহিমের গ্রেপ্তারের খবরেরও আমরা এই ছবিটি পাই যা ফেসবুকে শীতলকুচির ঘটনার নামে ভাইরাল হয়েছে।

শীতলকুচি image 6

Conclusion

আমাদের অনুসন্ধানে এটি প্রমাণিত যে ফেসবুকে শীতালকুচিতে কেন্দ্রীয় বাহিনী ও গ্রামবাসীদের মধ্যে সংঘর্ষের নামে ফেসবুকে যে ছবিটি ভাইরাল হয়েছে তা পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচন সম্পর্কিত নয়। ২০১৭ সালে রামরহিমের গ্রেপ্তারের খবরে হরিয়ানার পঞ্চকুলায় রামরহিমের ভক্তদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষের ছবি শীতলকুচির নামে ছড়িয়েছে।

Result- Misleading

Our sources

Twitter post- https://twitter.com/nawazulhaq/status/958577748150243328 https://twitter.com/DavidKoresh_/status/901473397078724609

Asianet newable- https://newsable.asianetnews.com/india/mobile-internet-services-suspended-in-haryana-punjab-till-tuesday

The Indian Express- https://newsable.asianetnews.com/india/mobile-internet-services-suspended-in-haryana-punjab-till-tuesday

সন্দেহজনক কোনো খবর ও তথ্য সম্পর্কে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে অথবা সত্যতা জানতে আমাদের লিখে পাঠান checkthis@newschecker.in অথবা whatsapp করুন- 9999499044 এই নম্বরে। এছাড়াও আমাদের সাথে Contact Us -র মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন ও ফর্ম ভরতে পারেন।

Paromita Das
With a penchant for reading, writing and asking questions, Paromita joined the fight to combat and spread awareness about fake news. Fact-checking is about research and asking questions, and that is what she loves to do.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular