বৃহস্পতিবার, মে 19, 2022
বৃহস্পতিবার, মে 19, 2022

HomeFact Checkরাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের পুরোনো ছবি ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়াতে

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের পুরোনো ছবি ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়াতে

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ফেসবুক, টুইটারে, ইনস্টাগ্রামে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের ছবি ভাইরাল হয়েছে, যার মধ্যে একটি ছবি বেশি শেয়ার হয়েছে যেখানে দেখা যাচ্ছে ভারতীয় বেশভুষা পরা দুইজন বিদেশী খাবার পরিবেশন করেছে। সাথে তাদের আরো সাথী সঙ্গীরা রয়েছে। এই ছবিটিকে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করে লেখা হয়েছে ‘ যুদ্ধ বিধ্বস্ত ইউক্রেনে ISKCON খাবার পরিবেশন করছে ইউক্রেন বাসী কে।
ISKCON এর ৫৪ টা মন্দিরের দরজা খুলে দেওয়া হয়েছে সাধারণ ইউক্রেন বাসীর সেবার জন্য।’ কেউ কেউ এই ছবিটি শেয়ার করে হিন্দু ধর্মের সেবা পরায়ণতার দিকটি তুলে ধরেছে।

টুইটার ও ফেসবুকে এই একই ছবি শেয়ার করেছেন মেঘালয়ের প্রাক্তন মেয়র তথাগত রায়

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের image 1
Courtesy: Facebook/tathagata2
Archive link – https://archive.is/yYZ2N

ফেসবুকে ভাইরাল এই ছবিটির কিছু পোস্ট নিচে দেখা যেতে পারে-

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের image 2
Courtesy: Facebook / bangladiscoverindia
রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের image 3
Courtesy: Facebook / Sandip Ghosh
রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের image 4
Courtesy: Facebook / Gouranga Pal

Crowdtangle এর ডেটা অনুসারে এই ছবিটির ৮৯,৪৭৭ ইন্টারঅ্যাকশন এবং প্রায় ১২০টি পোস্ট রয়েছে।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের image 5

ফেসবুকে ছাড়াও টুইটারেও সমানতালে ভাইরাল হয়েছে এই পোস্টটি-

এখানে ইনস্টাগ্রামের কিছু পোস্ট দেখা যেতে পারে।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের image 6
রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের imagre 7

ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণের(Russia-Ukraine Conflict) পর নিজের পরিবার নিয়ে নিরাপদ স্থানে চলে যাওয়ার পরিবর্তে আক্রমণকারী শত্রুর মুখোমুখি থেকে লড়াই করার কথা বলেছেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্‌স্কি। তিনি জানিয়েছে রাশিয়ার প্রথম লক্ষ্য হলো তিনি এবং দ্বিতীয় হলো ওনার পরিবার। দেশ, দেশের সন্তাদের যথাযথ সুরক্ষা প্রদান করে তার এখন মূল উদ্দেশ্য বলে একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে জানিয়েছে জেলেন্‌স্কি। ডানবাস, ক্রাইমিয়াও বেলারুশ দখলে নেওয়ার পর ইউক্রেনে যুদ্ধ পরিস্থিতির পরিবর্তন হয়েছে কারণে। ঘন ঘন বেজে উঠছে সাইরেন।ইউক্রেন সেনাদের সতর্ক করে দেওয়ার পর ইউক্রেন বাসি ও সেখানে থাকে ভারতীয় ছাত্রছাত্রীরা টাকাপয়সা, খাবার ও জল মজুত করতে শুরু করেছে।

Fact check / Verification

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ইউক্রেনে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের ছবিটির রিভার্স ইমেজ করার পর আমরা কিছু লিংক পাই। এখানে একটি লিংক থেকে জানতে পারি এই ছবিটি ২০১৯ সালের যা বর্তমানে রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধের আবহে ভাইরাল হয়েছে।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের image 8

ISKCON Desire Tree নামের ওয়েবসাইটে এই ছবিটি ৩রা জুন ২০১৯ সালে আপলোড করা হয়েছিল, কিন্তু এই ছবিটি সম্পর্কে সুস্পষ্ট ভাবে কোনো বিবরণ দেওয়া নেই।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের image 8
Courtesy: ISKCON Desire Tree

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের পুরোনো ছবি ভাইরাল

এছাড়াও আমরা Floridর Alachua তে অবস্থিত Hare Krishna (ISKCON) Temple এর ছবি। ছবিটি তুলেছেন Jivana Wilhoit নামের একজন ফটোগ্রাফার।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের image 9
Courtesy: Alachua Hare Krishna Temple

ISKCON দ্বারা ইউক্রেন থেকে হাঙ্গেরিতে যাওয়া রিফিউজি ও ভারতীয় পড়ুয়াদের জন্য তাজা খাবার দেওয়ার ব্যবস্থা শুরু করেছে। তাদের ফেসবুক থেকে আমরা খাবার পরিবেশনের ছবি পাই যেখানে ভাইরাল ছবিটি নেই।

Conclusion

আমাদের অনুসন্ধানে প্রমাণিত হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে ISKCON দ্বারা খাবার পরিবেশনের যে ছবিটি ভাইরাল হয়েছে তা ২০১৯ সাল থেকেই ইন্টারনেটে মজুত রয়েছে। ছবিটির সাথে বর্তমানের রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধের(Russia-Ukraine Conflict) কোনো সম্পর্ক নেই।

Result: False Context

Our sources

ISKCON Desire Tree – https://iskcondesiretree.com/

Alachua Hare Krishna Temple – https://www.alachuatemple.com/food/

ISKCON Facebook posts – https://www.facebook.com/iskconglobal/posts/2995818003968751


সন্দেহজনক কোনো খবর ও তথ্য সম্পর্কে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে অথবা সত্যতা জানতে আমাদের লিখে পাঠান [email protected] অথবা whatsapp করুন- 9999499044 এই নম্বরে। এছাড়াও আমাদের সাথে Contact Us -র মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন ও ফর্ম ভরতে পারেন।

Paromita Das
Paromita Das
With a penchant for reading, writing and asking questions, Paromita joined the fight to combat and spread awareness about fake news. Fact-checking is about research and asking questions, and that is what she loves to do.
Paromita Das
Paromita Das
With a penchant for reading, writing and asking questions, Paromita joined the fight to combat and spread awareness about fake news. Fact-checking is about research and asking questions, and that is what she loves to do.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular