শনিবার, এপ্রিল 20, 2024
শনিবার, এপ্রিল 20, 2024

HomeFact CheckFact Check: কোভিডের সাম্প্রতিক বৃদ্ধির মধ্যেই এক্সবিবি ভেরিয়েন্ট নিয়ে পুরানো 'বিভ্রান্তিকর' পরামর্শ...

Fact Check: কোভিডের সাম্প্রতিক বৃদ্ধির মধ্যেই এক্সবিবি ভেরিয়েন্ট নিয়ে পুরানো ‘বিভ্রান্তিকর’ পরামর্শ হোয়াটসঅ্যাপে ভাইরাল

Claim
ভারত জুড়ে করোনার সাম্প্রতিক বৃদ্ধির কারণ হিসেবে করোনাভাইরাসের একটি নতুন ভেরিয়েন্ট নিয়ে মানুষকে সতর্ক করে পরামর্শবার্তা প্রচারিত হয়েছে।

Fact
ওই পরামর্শগুলি ভুয়ো বলে প্রতিপন্ন হয়েছে এবং সেগুলি ২০২২ সাল থেকেই প্রচলিত রয়েছে।

কোভিডের একটি নতুন রূপ JN.1 চিহ্নিত হওয়া ও সিঙ্গাপুর, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং চিনে তা ছড়িয়ে পড়ার জেরে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক সম্প্রতি রাজ্যগুলিকে কোভিড সংক্রান্ত সতর্কতা বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছে। যদিও ভারতে JN.1 ভেরিয়েন্টটি উদ্বেগের কারণ কি না- তা এখনও স্পষ্ট নয়, কিন্তু গত এক সপ্তাহে সারা দেশে সংক্রমণ বেড়েছে ও প্রায় ২৫২টি নতুন সংক্রমণের ঘটনা জানা গিয়েছে।

সংক্রমণ বৃদ্ধির মধ্যেই একটি পরামর্শবার্তা হোয়াটসঅ্যাপে ভাইরাল হয়েছে, যেখানে বাসিন্দাদের কোভিডের “ভিন্ন ও মারণ” প্রকারের প্রাদুর্ভাবের বিষয়ে অতিরিক্ত সতর্কতা অবলম্বন করার আহ্বান জানানো হয়েছে। আমরা আমাদের হোয়াট্স্যাপ টিপলাইনে (9999499044)  ফরোয়ার্ড করা বার্তা হিসেবে সেটি পেয়েছি, যেখানে আমাদের ওই বার্তার সত্যতা পরীক্ষা করার অনুরোধ জানানো হয়েছিল।

এই হল হোয়াট্স্যাপে ফরোয়ার্ড করা সেই বার্তা:
সিঙ্গাপুর নিউজ়!
প্রত্যেককে মাস্ক পরার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে কারণ করোনাভাইরাসের নতুন COVID-Omicron XBB ভেরিয়েন্ট ভিন্ন, মারাত্মক এবং সঠিকভাবে শনাক্ত করাও সহজ নয়:-
নতুন ভাইরাস COVID-Omicron XBB এর লক্ষণগুলি নিম্নরূপ:-
১. কাশি নেই।
২. জ্বর নেই।
শুধু থাকবে অত্যন্ত :-
৩. গাঁটে ব্যথা।
৪. মাথা ব্যথা।
৫. ঘাড় ব্যথা।
৬. পিঠে উপরের দিকে ব্যথা।
৭. নিউমোনিয়া।
৮. সাধারণত ক্ষিদে না থাকা।
COVID-Omicron XBB ডেল্টা ভেরিয়েন্টের তুলনায় অবশ্যই ৫ গুণ বেশি ক্ষতিকর এবং মৃত্যুহারও অনেক বেশি।
কখনও কখনও সুস্পষ্ট লক্ষণ ছাড়াই পরিস্থিতি স্বল্প সময়ের মধ্যে চরম তীব্রতায় পৌঁছে যায়।
আসুন আরও সতর্ক হই!
এই ধরনের ভাইরাস নাসোফ্যারিঞ্জিয়াল অঞ্চলে থাকে না এবং তুলনামূলকভাবে অল্প সময়ের মধ্যে সরাসরি ফুসফুস, অর্থাৎ “জানালা” কে প্রভাবিত করে।
Covid Omicron XBB ধরা পড়া বেশ কিছু রোগীর ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে শেষ পর্যন্তও তাঁদের জ্বর নেই, ব্যথাও নেই। কিন্তু এক্স-রে ফলাফলে বুকে হালকা নিউমোনিয়া ধরা পড়েছে।

অনুনাসিক সোয়াব পরীক্ষার ক্ষেত্রে প্রায়শই COVID-Omicron XBB- এর ফল নেতিবাচক আসে এবং নাসোফ্যারিঞ্জিয়াল পরীক্ষার ক্ষেত্রে মিথ্যা নেতিবাচক ফলাফল প্রদানের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

যার অর্থ হল, ভাইরাসটি সমাজে ছড়িয়ে পড়তে পারে এবং সরাসরি ফুসফুসকে সংক্রামিত করতে পারে,  যার ফলে ভাইরাল নিউমোনিয়া হতে পারে যা শ্বাসযন্ত্রে তীব্র চাপ সৃষ্টি করতে পারে।

এ থেকেই বোঝা যায় যে কেন COVID-Omicron XBB অত্যন্ত সংক্রামক,  খুব ক্ষতিকর এবং মারাত্মক।

অনুগ্রহ করে মনে রাখবেন,  জনাবহুল স্থান এড়িয়ে চলুন, এমনকী খোলা জায়গায় দেড় মিটার দূরত্ব বজায় রাখুন, একটি দ্বি-স্তর মাস্ক পরুন,  উপযুক্ত মাস্ক ব্যবহার করুন এবং উপসর্গ না থাকলেও (কাশি বা হাঁচি না থাকলেও) ঘন ঘন হাত ধোবেন।

কোভিড ওমিক্রন “তরঙ্গ” কোভিড -১৯ এর প্রথম তরঙ্গের চেয়ে বেশি মারাত্মক। তাই আমাদের খুব সতর্ক থাকতে হবে এবং করোনাভাইরাসের সব ধরনের সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

এছাড়াও আপনার বন্ধুদের এবং পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগের ক্ষেত্রে সতর্কতা বজায় রাখুন।
এই তথ্যটি নিজের কাছে রাখবেন না,  যতটা সম্ভব অন্যান্য আত্মীয় এবং বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করুন,  বিশেষ করে আপনার নিজের পরিবার এবং বন্ধুদের সঙ্গে।

Fact Check

Newschecker লক্ষ্য করে যে হোয়াট্স্যাপ ফরোয়ার্ডটি Omicron XBB ভেরিয়েন্ট সম্পর্কে করা,  কিন্তু JN.1 ভেরিয়েন্টকে মনে করা হয় Omicron সাব-ভেরিয়েন্ট BA.2.86 বা পিরোলার বংশধর, যা 2023 সালের অগাস্টে লাক্সেমবার্গে প্রথম শনাক্ত হয়েছিল। আমরা জেনেছি যে XBB হল ২০২২ সালের অগাস্টে প্রথম চিহ্নিত হওয়া Omicron ভেরিয়েন্ট BA.2.10.1 এবং BA.2.75-এর একটি উপ-বংশ ও একটি পুনঃসংযুক্ত উপ-শ্রেণী– যা ইঙ্গিত করে যে ফরোয়ার্ড করা ভাইরাল বার্তাটি পুরানো।

সেই সূত্র ধরেই আমরা আমরা একটি প্রাসঙ্গিক কি-ওয়ার্ড অনুসন্ধান চালিয়েছিলাম, যা আমাদেরকে ২০২২ সালের ২২ ডিসেম্বর তারিখের স্বাস্থ্য মন্ত্রকের এই টুইটটিতে পৌঁছে দেয় যেখানে বলা হয়েছে যে XBB  ভেরিয়েন্ট সম্পর্কে কয়েকটি হোয়াট্স্যাপে গ্রুপে যে বার্তা প্রচারিত হচ্ছে- সেগুলি ভুয়ো ও বিভ্রান্তিকর। ওমিক্রনের XBB সাব-ভেরিয়েন্ট “ডেল্টা ভেরিয়েন্টের চেয়ে ৫ গুণ বেশি ক্ষতিকর এবং এর মৃত্যুর হার খুব বেশি”-এই দাবিকে অস্বীকার করে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া বিবৃতি নিয়ে বেশ কয়েকটি সংবাদ মাধ্যমও খবর করেছে। প্রতিবেদনগুলি এখানেএখানে and এখানে ক্লিক করে দেখা যাবে।

২০২২ সালের অক্টোবরে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (WHO) -এর একটি বিশেষজ্ঞ গ্রুপের এক বিশ্লেষণে বলা হয়েছে,  “আঞ্চলিক জিনোমিক নজরদারিতে XBB-এর প্রকোপ ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে… বর্তমান তথ্য থেকে এমনটা মনে হয় না যে রোগের তীব্রতায় যথেষ্ট পার্থক্য রয়েছে।”

হোয়াট্সঅ্যাপ ফরওয়ার্ডের উপরে ১১ নভেম্বর, ২০২২ তারিখে প্রকাশিত Reuters fact-check -এ লেখা হয়েছে, “সিঙ্গাপুরের সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীরা একটি টেক্সট পোস্ট কপি-পেস্ট করছেন যেখানে সতর্ক করা হয়েছে যে, COVID-19 Omicron XBB  ভেরিয়েন্ট, যা অগাস্টে প্রথম আবিষ্কৃত হয়েছে,  সেটি পাঁচগুণ বেশি “ক্ষতিকর” এবং ডেল্টা ভেরিয়েন্টের তুলনায় তার মৃত্যুর হারও অনেক বেশি। তবে,  সিঙ্গাপুরের স্বাস্থ্য মন্ত্রকের মতে এই দাবিকে সমর্থন করার কোনও পর্যাপ্ত প্রমাণ নেই। একইভাবে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) বলেছে যে বর্তমান তথ্য মোটেই প্রমাণ করে না যে XBB ওমিক্রনের চেয়ে বেশি মারাত্মক, যা ডেল্টার চেয়ে কম প্রাণঘাতী।”

Conclusion

ওমিক্রন এক্সবিবি ভেরিয়েন্টে মৃত্যুর হার বেশি,  বা এটি পাঁচ গুণ বেশি ‘ক্ষতিকর’- ভাইরাল হওয়া এই হোয়াট্সঅ্যাপের পরামর্শবার্তা পুরানো এবং বিভ্রান্তিকর বলে প্রমাণিত হয়েছে।

Result: False

Sources
Tweet, Ministry of Health, December 22, 2022
Reuters report, November 11, 2022


সন্দেহজনক কোনো খবর ও তথ্য সম্পর্কে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে অথবা সত্যতা জানতে আমাদের লিখে পাঠান checkthis@newschecker.in অথবা whatsapp করুন- 9999499044 এই নম্বরে। আমাদের whatsapp চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এখানে ক্লিক করে।এছাড়াও আমাদের সাথে Contact Us -র মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন ও ফর্ম ভরতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular