শুক্রবার, জুলাই 19, 2024
শুক্রবার, জুলাই 19, 2024

HomeFact CheckFact Check: তামিলনাড়ুতে প্রচারের সময় বিজেপি নেতাকে মারধর জনতার? ভাইরাল ভিডিয়োর সত্যতা...

Fact Check: তামিলনাড়ুতে প্রচারের সময় বিজেপি নেতাকে মারধর জনতার? ভাইরাল ভিডিয়োর সত্যতা জানুন

Claim: ভোট-প্রচারে তামিলনাড়ুর এক বিজেপি নেতাকে মারধর করল সাধারণ মানুষ।

Fact: ভাইরাল ভিডিওটি ২০২৩ সালের অক্টোবর মাসের। এখানে ওড়িশার দুই বিজেপি নেতাকে পরস্পরের সঙ্গে মারপিট করতে দেখা যাচ্ছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে দাবি করা হয়েছে যে, ভোটপ্রচার চলাকালীন তামিলনাড়ুর বাসিন্দারা এক বিজেপি নেতাকে গাড়ি থেকে নামিয়ে মারধর করেছেন। (আর্কাইভ লিঙ্ক)

বিজেপি নেতাকে মারধর Image 1

Fact Check/ Verification

ভিডিয়োটির একটি কিফ্রেমের রিভার্স ইমেজ সার্চ করলে ওডিশা বাইট রিপোর্টে ২০২৩ সালের ৯ অক্টোবর প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে একই ছবি দেখতে পাওয়া যায়। ওই প্রতিবেদন থেকে জানা যায় যে, ওড়িশা বিজেপির বালাঙ্গির জেলার দুই নেতা, দলের রাজ্য সভাপতি মনমোহন সামালের একটি সমাবেশে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েছিল।

বিজেপি নেতাকে মারধর Image 2

একই দিনে একই ভিডিয়ো আপলোড করেছিল কলিঙ্গ টিভি। “2 groups of BJP face off during rally in Odisha’s Balangir district”, এই শিরোনামে ভিডিয়োটি আপলোড করা হয়েছিল। এর থেকেই নিশ্চিত হওয়া যায় যে ভাইরাল ভিডিয়োটি তামিলনাড়ুর নয়। এই একব সংক্রান্ত সংবাদ প্রতিবেদনগুলি এখানে এবং এখানে দেখা যাবে। সেখান থেকে জানা গিয়েছে যে, ওই সময় হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েছিলেন ওড়িশার বিজেপি নেতা গোপালজি পানিগ্রাহি এবং অনন্ত দাস।

আগেও এই ভিডিয়োটি ভাইরাল হয়েছিল, মধ্যপ্রদেশে বিজেপি নেতাদের মধ্যে সংঘর্ষের দাবিতে৷ ২০২৩ সালের ৩১ অক্টোবর নিউজচেকার হিন্দি, তার ফ্যাক্ট-চেক রিপোর্টে, বালাঙ্গির মহকুমা পুলিশ অফিসারের সঙ্গে কথা বলেছিল। তিনি আমাদের জানিয়েছিলেন যে, ঘটনাটি ৯ অক্টোবর, ২০২৩ সালে, বালাঙ্গির জেলায় ঘটেছিল।

Conclusion

সুতরাং এখান থেকেই স্পষ্ট যে ভাইরাল ভিডিয়োটি তামিলনাডুে বিজেপি নেতাদের মারধরের নয়। বরং সেটা ২০২৩ সালে ওড়িশায় বিজেপিরই দুই নেতার পরস্পরকে মারধরের ভিডিয়ো।

Result: False

Source
OdishaBytes report, October 9, 2023
Youtube video, Kalinga TV, October 9, 2023

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular