সোমবার, জুলাই 15, 2024
সোমবার, জুলাই 15, 2024

HomeFact CheckFact Check: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কি বলেছেন কাজি নজরুল ইসলাম মহাভারত লিখেছিলেন? না,...

Fact Check: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কি বলেছেন কাজি নজরুল ইসলাম মহাভারত লিখেছিলেন? না, ভাইরাল ভিডিয়োটি সম্পাদিত

Authors

Chayan Kundu

Claim
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেছেন মহাভারতের রচয়িতা হলেন বাঙালি কবি কাজি নজরুল ইসলাম

Fact
ভাইরাল হওয়া ভিডিয়োটি সম্পাদিত। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তৃণমূল কংগ্রেস দলের ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসে কাজি নজরুল ইসলামের একটি কবিতার উদ্ধৃতি দিচ্ছিলেন, কিন্তু কখনওই বলেননি যে কাজি নজরুল ইসলাম মহাভারত লিখেছেন।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিভিন্ন বিতর্কিত মন্তব্য করে খবরের শিরোনামে আসতেই থাকেন। সম্প্রতি চন্দ্রযান ৩-এর সাফল্য নিয়ে বলার সময় তিনি প্রথম ভারতীয় মহাকাশচারী হিসেবে রাকেশ শর্মার বদলে রাকেশ রোশন  -এর নাম নেন। তা নিয়ে প্রবল সমালোচনাও হচ্ছে। এই ঘটনার রেশ না কাটতেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আরও একটি একটি ভিডিয়ো ক্লিপ সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে, যেখানে দাবি করা হচ্ছে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মহাভারতের লেখক হিসেবে না কি কাজি নজরুল ইসলাম-এর নাম উল্লেখ করেছেন। বহু ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্ট এমনকী, বেশ কিছু বড় মাপের সংবাদমাধ্যমও ওই ভিডিয়ো ক্লিপটি শেয়ার করেছে বা তা নিয়ে খবর করেছে।

জি নিউজ এই বিষয়ে হেডলাইন -সহ লিখেছে, ‘রাকেশ রোশন’ কাণ্ডের পরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ বার বললেন, মহাভারতের রচয়িতা কাজি নজরুল ইসলাম। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, “একটি চমকে দেওয়া নতুন ভিডিয়োতে তৃণমূল কংগ্রেসের সুপ্রিমোকে ঘোষণা করতে দেখা যাচ্ছে- মহাকাব্য মহাভারত আদতে বেদব্যাস নন, লিখেছেন বিদ্রোহী কবি কাজি নজরুল ইসলাম।”

Courtesy: Zee News Website

অপর সংবাদ প্রতিষ্ঠান ফ্রি প্রেস জার্নালও একটি লেখা প্রকাশ করে যার শিরোনাম ছিল, “মহাভারত লিখেছেন কাজি নজরুল ইসলাম’: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নয়া কাণ্ড! পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আবারও গুবলেট করলেন, বলে বসলেন মহাভারত রচনা করেছেন কাজি নজরুল ইসলাম।” ওই প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, “পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্প্রতি ভুল করে কাজি নজরুল ইসলামকে মহাকাব্য মহাভারতের লেখকের তকমা দিয়েছেন।”

Courtesy: The Free Press Journal

জনপ্রিয় সংবাদ সংস্থা রিপাবলিক ওয়ার্ল্ডও একই বিষয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে লেখে, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ ফসকানোর পরম্পরা অব্যহত; চন্দ্রযান ৩-এর পরে এ বার মহাভারতের পালা।”

পাশাপাশি, জনপ্রিয় সংবাদ প্রতিষ্ঠান Live Hindustan ও OpIndia ও একই মোচড় দিয়ে ওই সংবাদ প্রকাশ করে।

Courtesy: Live Hindustan & OpIndia (Website)

পশ্চিমবঙ্গের বিশিষ্ট বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী ওই ভাইরাল ভিডিয়ো টুইটারে (বর্তমানে এক্স) শেয়ার করে দাবি করেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইচ্ছাকৃতভাবে “হিন্দু ধর্মের সঙ্গে জড়িত সত্য”কে বিকৃত করছেন।”

শুভেন্দু অধিকারী লেখেন, “গতকাল, ২৮ অগস্ট, ২০২৩, তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসের সভায় ভাষণ দেওয়ার সময় মমতা বলেন, মহান মহাকাব্য মহাভারত কাজি নজরুল ইসলামের লেখা।”

অন্য দিকে, বিজেপির মুখপাত্র শেহজাদ পুনাওয়ালাও ওই ভাইরাল ক্লিপ টুইট করে লেখেন, “শিব শক্তি পয়েন্টের বিরোধিতা করা ও হিন্দু আস্থার অপমান করা থেকে শুরু করে এখন বেদব্যাসের হাত থেকে মহাভারত লেখার স্বীকৃতি হরণ ও প্রভূ শ্রী রামের অস্তিত্ব নিয়ে প্রশ্ন তোলা- এই হল I.N.D.I.A. জোটের আসল চেহারা।”

আরও অনেক টুইটার হ্যান্ডাল থেকে এই একই দাবি ও ভাইরাল ভিডিয়ো ক্লিপ আপলোড করে টুইট করা হয়েছে।

Fact Check/Verification

নিউজচেকার প্রথমে ভাইরাল ভিডিয়োর সত্যতা খতিয়ে দেখতে গুগলে কিওয়ার্ড সার্চ করে এবং কিছু নিউজ রিপোর্ট খুঁজে পায়। সেখান থেকে আমরা জানতে পারি, ওই ভাইরাল ভিডিয়োটি ২০২৩ সালের ২৮ অগস্ট কলকাতায় তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসের ভিডিয়ো। আমরা সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস-এর অফিসিয়াল ইউটিউব পেজে সে দিনের অনুষ্ঠানে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দেওয়া ভাষণটিও পেয়ে গেলাম।

তা থেকে স্পষ্ট বোঝা গিয়েছে যে ভাইরাল ভিডিয়োটি দীর্ঘ ওই ভিডিয়ো থেকে কয়েকটি অংশ ছেঁটে নিয়ে তৈরি করা হয়েছে। দলের ইউটিউব চ্যানেলে ২:৫১:৪৩ মিনিট থেকে শুরু হওয়া মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পূর্ণ ভাষণটি শোনার পরে আমরা স্পষ্ট বুঝতে পারলাম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মহাভারত নিয়ে ঠিক কী বলেছিলেন।

Courtesy: AITC Official

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাংলায় বলেন, “রবীন্দ্রনাথ পড়ুন ও জানুন, বিবেকানন্দ পড়ুন ও জানুন, নজরুল পড়ুন ও জানুন, বিরসা মুন্ডা পড়ুন ও জানুন, রঘুনাথ মুর্মু পড়ুন ও জানুন, মতুয়া ঠাকুর পড়ুন ও জানুন, রাজবংশীদের পঞ্চানন বর্মা পড়ুন ও জানুন, মহাভারত (পড়ুন ও জানুন)…. নজরুল ইসলাম লিখেছিলেন “কোরান, পুরাণ, বেদ, বেদান্ত, বাইবেল, ত্রিপিটক, জেন্দাবেস্তা, গ্রন্থসাহেব প’ড়ে যাও, যত সম্ভৱ”…

আমরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে মেয়ো রোডে হওয়া অনুষ্ঠানের বক্তৃতাও পেয়েছি। আপনারা সেই ভিডিয়োও এখানে দেখতে পারেন।

ওই ভাইরাল ভিডিয়োয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বলতে শোনা যাচ্ছে, “মহাভারত… কাজি নজরুল ইসলাম লিখেছিলেন…”। কিন্তু ভাষণের প্রতিলিপি ও সম্পূর্ণ ভিডিয়ো থেকে এটা একেবারে স্পষ্ট যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কখনওই বলেননি কবি কাজি নজরুল ইসলাম মহাভারত লিখেছিলেন। বক্তৃতায় তিনি ওই বিখ্যাত ভারতীয় মহাকাব্যের উল্লেখ করে, দেশের মহান রচয়িতাদের রচনা পাঠে শ্রোতাদের উদ্বুদ্ধ করতে ও ভারতের যুগান্তকারী ধ্রুপদী সাহিত্য সম্ভার থেকে জ্ঞানাহরণ করতে উৎসাহ দিচ্ছিলেন। তাঁর সুদীর্ঘ পাঠ্য তালিকায় সবার শেষে তিনি মহাভারতের কথা উল্লেখ করেন।

টিএমসিপির প্রতিষ্ঠা দিবসে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাষণের একটি কাট-ছাঁট করা ভিডিয়ো অনলাইনে ছড়িয়ে পড়েছে। ভিডিয়োর সঙ্গে একটি ভ্রান্ত দাবিও জুড়ে দেওয়া হয়েছে যে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভুল করে মহাভারতের লেখক হিসেবে কাজি নজরুল ইসলামের নাম উচ্চারণ করেছেন।

CONCLUSION

বাস্তবে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভাষণের সময় কাজি নজরুল ইসলামের লেখা একটি কবিতার উদ্ধৃতি দিচ্ছিলেন। এবং এমন কোনও প্রমাণ নেই যে তিনি বলেছেন মহাভারতের রচয়িতা নজরুল ইসলাম। নিউজচেকার সত্য যাচাই করার পরে নিশ্চিত করেছে যে ওই দাবি বিভ্রান্তিকর।

RESULT: FALSE

Source:
1. Facebook & Youtube Page – Mamata Banerjee, All India Trinamool Congress
2. X Post – Suvendu Adhikari
3. X Profile – Shehzad Poonawalla


সন্দেহজনক কোনো খবর ও তথ্য সম্পর্কে আপনার প্রতিক্রিয়া জানাতে অথবা সত্যতা জানতে আমাদের লিখে পাঠান checkthis@newschecker.in অথবা whatsapp করুন- 9999499044 এই নম্বরে। এছাড়াও আমাদের সাথে Contact Us -র মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন ও ফর্ম ভরতে পারেন।

Authors

Chayan Kundu

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular