বুধবার, জুলাই 24, 2024
বুধবার, জুলাই 24, 2024

HomeFact CheckFact Check: নারদা কাণ্ডে অভিযুক্ত শুভেন্দু অধিকারীর ভিডিয়ো দেখছেন না প্রধানমন্ত্রী, ভাইরাল...

Fact Check: নারদা কাণ্ডে অভিযুক্ত শুভেন্দু অধিকারীর ভিডিয়ো দেখছেন না প্রধানমন্ত্রী, ভাইরাল ভিডিয়োটি সম্পাদিত

Claim: নারদা কাণ্ডে অভিযুক্ত শুভেন্দু অধিকারীর ভিডিয়ো দেখছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

Fact: ভাইরাল ভিডিয়োটি ভুয়ো এবং সম্পাদিত। আসলে প্রধানমন্ত্রী চন্দ্রযান-২-এর সফল উৎক্ষেপণের লাইভ টেলিকাস্ট দেখছিলেন।  

লোকসভা ভোটের আবহে জোরকদমে প্রচার চালাচ্ছে রাজনৈতিক দলগুলো। আক্রমণ, পাল্টা আক্রমণের পর্ব চলছে। মাঠে-ময়দানের পাশাপাশি প্রচারের অন্যতম হাতিয়ার হয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া। সেখানেও রাজনৈতিক নেতাদের নানান ছবি, ভিডিয়ো, উক্তি একইভাবে দৃশ্যমান।

এই পরিস্থিতিতে ফেসবুকে একটি ভিডিয়ো ঘুরছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে, টিভিতে নারদা স্টিং অপারেশনের একটি ক্লিপ চলছে এবং ওই কাণ্ডে অভিযুক্ত শুভেন্দু অধিকারীকে টাকা নিতে দেখা যাচ্ছে। টিভিতে নারদা স্টিং অপারেশনের ওই ক্লিপটি দেখতে দেখতে হাততালি দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই ভিডিয়োটি ফেসবুকে পোস্ট করে একজন লিখেছেন, “ডাকাত অন্যকে চোর বলে”।

শুভেন্দু অধিকারীর ভিডিয়ো Image 1

Fact Check/ Verification

 নারদা স্টিং অপারেশন কী?

২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনের মাসখানেক আগে রাজ্য তথা দেশের রাজনীতিতে সাড়া ফেলে দিয়েছিল নারদা স্টিং অপারেশন। যেখানে শাসক দলের একাধিক নেতা-মন্ত্রী-সাংসদ ও এক আইপিএস অফিসারের বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। গোপন ক্যামেরায় করা রেকর্ডিংয়ে তাঁদের টাকা নিতেও দেখা গিয়েছিল। ‘নারদা নিউজ’-এর প্রতিষ্ঠাতা ম্যাথু স্যামুয়েল সেই স্টিং অপারেশনটি করেছিলেন। প্রায় ৫৬ ঘণ্টার ওই স্টিং ফুটেজ দেখিয়ে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল শাসকদলের তৎকালীন নেতা মুকুল রায় (বর্তমানে বিজেপি বিধায়ক), শঙ্কুদেব পণ্ডা (এখন বিজেপিতে) ও শুভেন্দু অধিকারীর (বর্তমানে বিজেপি বিধায়ক ও রাজ্যের বিরোধী দলনেতা) বিরুদ্ধে। অভিযুক্তের তালিকায় নাম ছিল সৌগত রায়, কাকলী ঘোষ দস্তিদার, মদন মিত্র, শোভন চট্টোপাধ্যায়, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম, ও আইপিএস (বর্তমানে সাসপেন্ডেড) অফিসার এইচএমএস মিরজ-সহ আরও অনেকের। ২০১৭ সালে কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে এই কেসের তদন্ত শুরু করেছে সিবিআই। তদন্ত করছে ইডিও। এখনও বিভিন্ন রাজনৈতিক সভা-সমাবেশে এই স্টিং অপারেশনকে হাতিয়ার করে শাসকদলকে আক্রমণ শানায় বিরোধীরা। পাল্টা শুভেন্দু অধিকারী ও শঙ্কুদেবের নাম করে বিজেপিকে খোঁচা দেয় তৃণমূল কংগ্রেস।

তদন্তের শুরুতে ভাইরাল ক্লিপটির একটি কিফ্রেমের রিভার্স ইমেজ সার্চ করলে ২০২২ সালের ২২ জুলাই সংবাদসংস্থা এএনআই-এর একটি এক্স পোস্ট আমাদের নজরে পড়ে। ওই পোস্টেও একই ভিডিয়ো দেখতে পাওয়া যায়। যার বিবরণে লেখা ছিল, ‘ইসরোর তৈরি চন্দ্রযান-২ এর সফল উৎক্ষেপণের লাইভ টেলিকাস্ট দেখছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।’ 

আর খুঁজলে দেখা যায়, একই সময়, একই বিবরণ-সহ ভিডিয়োটি পোস্ট করা হয়েছিল, সংবাদমাধ্যম India TodayHindustan Times  ও NDTV-র  অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেল ও ওয়েবসাইটেও।

Conclusion

ফলে এখান থেকেই স্পষ্ট হয়ে যায় যে, ভাইরাল ভিডিয়োটি ভুয়ো ও সম্পাদিত। নারদা কাণ্ডে অভিযুক্ত শুভেন্দু অধিকারীর ভিডিয়ো দেখছিলেন না প্রধানমন্ত্রী মোদী। আসলে তিনি চন্দ্রযান-২-এর সফল উৎক্ষেপণের লাইভ টেলিকাস্ট দেখছিলেন। 

Result: Edited Video

Sources:
Video posted by ANI
Video posted by India TodayHindustan TimesNDTV

Most Popular