বৃহস্পতিবার, জুলাই 18, 2024
বৃহস্পতিবার, জুলাই 18, 2024

HomeLoksabha Election 2024Fact Check: নকল আঙুলের সাহায্যে ভোটে কারচুপির প্ল্যান? ভাইরাল ছবির সত্যতা জানুন

Fact Check: নকল আঙুলের সাহায্যে ভোটে কারচুপির প্ল্যান? ভাইরাল ছবির সত্যতা জানুন

Claim: ভোটে কারচুপির জন্য জাল নকল আঙ্গুল তৈরি হচ্ছে। 

Fact: নকল আঙুলের ছবির সঙ্গে ভারতের লোকসভা ভোটের কোনও যোগ নেই। জাপানের ভয়ঙ্কর ইয়াকুজা গ্যাংস্টারদের জন্য এই কৃত্রিম আঙুলগুলো তৈরি করেছিলেন শিন্তারো হায়াসি।

বেশ কিছু  আঙুলের ছবি পোস্ট করে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীদের একাংশ দাবি করছেন যে, সেগুলো নকল আঙুল। লোকসভা ভোটে কারচুপি করার জন্য এগুলো তৈরি করা হচ্ছে। ফেসবুকে ছবিগুলো পোস্ট করে লেখা হয়েছে, “জাল ভোট দেওয়ার জন্য নকল আঙ্গুল তৈরি হচ্ছে। আঙ্গুল তো নয় আঙ্গুলের খোলস। আঙ্গুল পরে নিলে বুঝাই যাবে না সেটি আসল না নকল। ভোটগ্রহণ কর্মীরা ওই আঙ্গুলে কালি মাখিয়ে বোকা বনে যেতে পারেন। দেশের কি হাল দেখুন” (পোস্টের বানান অপরিবর্তিত) (Archive Link)

Fact Check/ Verification

ভাইরাল ছবির রিভার্স ইমেজ সার্চ করলে ২০১৩ সালের ৬ জুন ABC News-এ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন আমাদের নজরে পড়ে। যার শিরোনাম হল- ‘Prosthetic Fingers Help Reform Japan’s Feared Yakuza Gangsters’।

ওই রিপোর্ট থেকে জানা যায় যে, জাপানের ভয়ঙ্কর ইয়াকুজা গ্যাংস্টারদের জন্য এই কৃত্রিম আঙুলগুলো তৈরি করেছিলেন শিন্তারো হায়াসি। জাপানের একটি অপরাধমূলক সংগঠন হল ইয়াকুজা। তাদের মধ্যে ইউবিতসুমে নামের একটি রীতি চালু রয়েছে। যে রীতি মেনে নিজের পাপস্খলনের জন্য আঙুল কাটে ফেলেন ওই দলের সদস্যরা। ইয়াকুজা গ্যাংস্টারদের জন্য এই কৃত্রিম আঙুল তৈরি করা হয়।  

শিন্তারো হায়াসির তৈরি আঙুলগুলোর আরও ছবি দেখা যাবে এখানে, এখানেএখানে

মার্কিন-জাপানিজ লেখক আক্কিকো ফুজিতা ২০১৩ সালের ১৬ ডিসেম্বর এই একই ছবি ব্যবহার করে একটি প্রতিবেদনও লিখেছিলেন। যা থেকে প্রমাণিত হয় যে, ছবিটির সঙ্গে ২০২৪ সালের লোকসভা ভোটের কোনও যোগ নেই।

Conclusion

নকল আঙুলের ছবির সঙ্গে ভারতের লোকসভা ভোটের কোনও যোগ নেই। জাপানের ভয়ঙ্কর ইয়াকুজা গ্যাংস্টারদের জন্য এই কৃত্রিম আঙুলগুলো তৈরি করেছিলেন শিন্তারো হায়াসি।

Result: False

Source
ABC news report, June 6, 2013
Akiko Fujita’s website 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular